Connect with us

ক্রিকেট

কে হতে পারেন ২০১৯ আইসিসি বর্ষসেরা খেলোয়াড়?

২০০৫ সাল থেকে নিয়মিতভাবে আইসিসি প্রত্যেক ক্যাটাগরির ও শ্রেনীর ক্রিকেটার কিংবা আম্পায়ার্সদের বর্ষসেরার পুরষ্কার দিয়ে আসছে। আইসিসি সর্বমোট ১১টি ক্যাটাগরিতে বর্ষসেরার পুরষ্কার দিয়ে থাকে। এক একটি পুরষ্কারকে এক এক মানে অবহিত করা হয়। যেমন- আিসিসি বর্ষসেরা খেলোয়াড় পান স্যার গারফিল্ড সোবার্স ট্রফি, বর্ষসেরা আম্পায়ার পেয়ে থাকেন ডেভিড শেফার্ড ট্রফি ইত্যাদি।

স্যার গারফিল্ড সোবার্স; kensington

এই বছর বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার তাদের অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন। ওয়ানডে র‍্যাংকিং এর ১ নাম্বার ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি, টি-টোয়েন্টি র‍্যাংকিং এর ১ নাম্বার ব্যাটসম্যান বাবর আজম, টেস্টের ১ নাম্বার ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ ছাড়াও রোহিত শর্মা, শেন ওয়ার্ন, বেন স্টোকস, সাকিব আল হাসান, নাম্বার ওয়ান টেস্ট বোলার প্যাট কামিন্স সহ আরও অনেক ক্রিকেটার আছেন যারা সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপ সহ পুরো বছর অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন। পাশাপাশি দাবি রাখছেন এইবারের বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার জেতার।

চলুন দেখে নেওয়া যাক কার সবার থেকে এগিয়ে আছেন এই লড়াইয়ে-

কেন উইলিয়ামসন

এই প্রজন্মের একজন সেরা খেলোয়াড় হিসেবে কেন উইলিয়ামসনকে নিঃসন্দেহে বিবেচনা করা যায়। তিনি যে পথে হাঁটছেন ক্যারিয়ার শেষে যে নিজেকে কিউইদের হয়ে সর্বকালের সেরাদের কাতারেই নিয়ে যাবেন তা বলাই বাহুল্য। অধিনায়ক ও দ্বায়িত্বশীল ব্যাটসম্যান হিসেবে নিউজিল্যান্ডকে নেতৃত্ব দিয়ে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

কেন উইলিয়ামসন; icc

২০১৯ বিশ্বকাপে তার ব্যাটিং শৈলীতা ও নেতৃত্বগুণে ফাইনালেও মাঠের খেলায় অপরাজিত থাকে কিউইরা। ভাগ্য আর নিয়মের কাছে হেরে কিউদের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের প্রথম অধিনায়ক হিসেবে ইতিহাস ঘটাতে পারেননি তিনি। তবে একজন সফল ব্যাটসম্যান ও অন্যতম সেরা অধিনায়ক হিসেবে সকলের মন ঠিকই জয় করে নিয়েছিলেন উইলিয়ামসন। তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন শত কোটি ক্রিকেট ভক্তরা।

কেন উইলিয়ামসন; icc

তৌরাঙ্গায় জন্মগ্রহণকারী কিউই এই ক্রিকেটার এই বছরের অক্টোবর পর্যন্ত চারটি টেস্ট ম্যাচের পাঁচ ইনিংসে ব্যাট করে ৭৪.৫ গড়ে ২৯৮ রান সংগ্রহ করেন। ২০টি ওয়ানডে ম্যাচে ৫৯.২৫ গড়ে করেন ৯৪৮ রান। এছাড়াও এই বছর টেস্ট ও ওয়ানডেতে যতটি ম্যাচ খেলেছেন সব ম্যাচেই দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি। উইলিয়ামসনের অধীনে ৪ টেস্টের ৩টিতে এবং ২০ ওডিয়াইয়ের মধ্যে ১২টিতে জয়ের দেখা পায় ব্ল্যাক ক্যাপসরা।

২০১৯ বিশ্বকাপের ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হাতে উইলিয়ামসন; Icc

এই বছর এখনও ৫টি টি-টোয়েন্টি ও ২টি টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ রয়েছে তার। উইলিয়ামসন ২০১৯ বিশ্বকাপের টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। সম্ভাবনা রয়েছে এই বছর আইসিসির বর্ষ সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হওয়ারও৷ ক্রিকেট বোদ্ধাদের মতে এই লড়াইয়ে অন্যদের থেকেও অনেকটাই এগিয়ে আছেন এই কিউই ক্রিকেটার।

রোহিত শর্মা

এই বছরটি যেনো আগে থেকেই নিজের মতো করে সাজিয়ে রেখেছিলেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। একের পর এক শতক, দ্বিশতক হাঁকিয়ে নিজেকে রান মেশিন হিসেবে সমাদৃত করেছেন ক্রিকেট বিশ্বে। পার করছেন ক্যারিয়ায়ের অন্যতম সেরা সময়। টেস্ট, টি-টোয়েন্টি কিংবা ওডিআই এই বছর সব ফরম্যাটেই রানের দেখা পেয়েছে রোহিত।

রোহিত শর্মা; Image Source: ICC

২০১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হেরে বিশ্বকাপ জয়ের লড়াই থেকে ছিটকে গেলেও নিজের কাজটা আগেই করে নিয়েছিলেন ভারতীয় এই ওপেনার। যদিও বিশ্বকাপের মাঝ পথে ইঞ্জুরিতে আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি, তারপরও ৯ ইনিংস ব্যাট করে হাঁকিয়েছিলেন ৫টি সেঞ্চুরি। করেছেন টুর্নামেন্ট সর্বোচ্চ ৬৪৮ রান। বিশ্বকাপে এক আসরে সাঙ্কাকারার করা ৪ সেঞ্চুরির রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ডের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি।

রোহিত শর্মা; Image Source: ICC

বিশ্বকাপ কাঁপিয়ে ফেরা রোহিত শর্মাকে টেস্টেও বাজিয়ে দেখতে চেয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। সুযোগ পেয়েই কাজ লাগিয়েছেন তিনি। ওপেনার হিসাবে ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট খেলতে নেমেই শতক পূর্ণ করে অনন্য এক রেকর্ড করেন তিনি। ওই ম্যাচেই ষষ্ঠ ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে এক টেস্টের দুই ইনিংসে শতককের দেখা পান তিনি। সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের ৪ ইনিংস ব্যাট করে ৫২৯ রান সংগ্রহ করেন রোহিত।

রোহিত শর্মা; Image Source: ICC

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে অসাধারণ পারফরম্যান্সের জন্য স্যার গারফিল্ড সোবার্স ট্রফি জয়ের দৌঁড়ে অনেকটাই এগিয়ে আছেন তিনি। রোহিত এই বছর ওডিআইতে ২৪টি ম্যাচ খেলেন। যাতে ৫৩.৫৬ গড়ে করেছেন ১২৩২ রান। এই বছর এখনও ২টি টেস্ট, ৬টি টি-টোয়েন্টি ও ৩টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা রয়েছে মুম্বাইয়ের এই ক্রিকেটারের। গত চার বছরের মধ্যে ৩য় ভারতীয় হিসেবে আইসিসির বর্ষ সেরার ক্রিকেটারের পুরষ্কার উঠতে পারে তার হাতে।

বিরাট কোহলি

২০১৭ ও ২০১৮ সালে টানা দুইবার আইসিসি বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন বর্তমান সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। এর আগে ২০১৪ সালে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে এই পুরষ্কারটি জেতেন তিনি। ব্যাটিং রেকর্ডে তার একক অধিপত্যের জন্য ‘কিং কোহলি’ হিসেবেও পরিচিতি লাভ করেন বিরাট।

বিরাট কোহলি; Image Source: ICC

২০১৯ আইসিসি বর্ষসেরা খেলোয়াড় হওয়ার লড়াইয়েও অনেকটাই এগিয়ে আছেন তিনি। সু্যোগ রয়েছে প্রথম ক্রিকেটার হিসাবে টানা তিনবার ও সর্বাধিক চারবার এই অ্যাওয়ার্ড জয়ের রেকর্ড করার। একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে আইসিসির ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ে তিন ফরম্যাটের শীর্ষ ১০ এ আছেন বিরাট কোহলি। দলের কঠিন পরিস্থিতিতেও হেসে খেলে রান তুলতে পারেন এই ভারতীয় অধিনায়ক।

বিরাট কোহলি; Image Source: ICC

সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ পর্যন্ত এই বছর ৬টি টেস্ট ম্যাচ খেলেন কোহলি। ৬৮ গড়ে করেছেন ৪৭৯ রান। অধিনায়ক হিসেবে ৬ ম্যাচের ৫টি তেই জয়ের দেখা পান তিনি। রান মেশিন খ্যাত এই ব্যাটসম্যান এই বছরে ২২টি ওডিআই ম্যাচ খেলেন। ৬৪.৪ গড়ে করেন ১২৮৮ রান। সবকয়টি ম্যাচেই অধিনায়ক হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেন তিনি।

বিরাট কোহলি; Image Source: ICC

২২ ম্যাচে তার দল ৭৩% জয়ে দেখা পায় ১৬ ম্যাচে। বিশ্বকাপে তার নেতৃত্বে সেমিফাইনাল পর্যন্ত খেলে ভারতীয়রা। এই বছর এখনও ২টি টেস্ট, ৩টি ওডিআই এবং ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা রয়েছে তার দলের।

বেন স্টোকস

২০১৯ সালে ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা বিশ্বকাপ ফাইনাল ও শতাব্দীর সেরা টেস্ট ম্যাচ দেখেছে ক্রিকেট বিশ্ব। দুই ম্যাচেরই জয়ের নায়ক কিন্তু একজনই ছিলেন। দৃষ্টিনন্দন ও বুদ্ধিদীপ্ত ব্যাটিংয়ে দুই ম্যাচে দলকে জয় উপহার দেওয়ার সে নায়ক ছিলেন ইংলিশ ক্রিকেটার বেন স্টোকস।

বেন স্টোকস; Image Source: ICC

২০১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে একাই লড়েছিলেন বেন স্টোকস। এক একে সব ব্যাটসম্যানরা যখন কিউই বোলারদের কাছে ধরাশায়ী হচ্ছিলেন তখন তিনি একাই ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত দলকে শিরোপা জেতার আশায় সময় পার করিয়েছেন। তার অনবদ্য ৮৪ রানে ইনিংসে হারতে যাওয়া ম্যাচের শেষ বলে নাটকীয়তার জন্ম দিয়ে ম্যাচটি ড্র হয়ে সুপার ওভারেও গড়ায়।

বেন স্টোকস; Image Source: ICC

সুপার ওভারেও অসাধারণ ব্যাটিং করেন তিনি। তার এই অসাধারণ পারফরম্যান্সের কারনেই প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ গ্রহণ করে ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপ শেষ হতে না হতে অ্যাশের তৃতীয় ম্যাচে নিজেকে আবারও আলোচনায় নিয়ে আসেন স্টোকস। তার দানবীয় ব্যাটিং আবারও প্রদর্শন করান ক্রিকেট বিশ্বকে। ক্রিকেট ভক্তদের উপহার দেন শতাব্দীর আরেকটি সেরা ও স্মরণীয় ম্যাচ।

বেন স্টোকস; Image Source: ICC

শেষ উইকেটে লেচের সাথে তার অসাধারন জুটিতে ও অপরাজিত ১৩৫ রানের ইনিংসে হারতে যাওয়া ম্যাচে নাটকীয় জয় পায় ইংলিশরা। এই বছর ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা ক্রীড়াবীদ নির্বাচত হন স্টোকস। ইংলিশ এই অলরাউন্ডার এই বছর ৮টি টেস্ট ম্যাচ খেলেন। যাতে ৪৮.২৩ গড়ে ৬২৭ রান সংগ্রহ করেন এবং শিকার করেন ১৮ উইকেট।

বেন স্টোকস; Image Source: ICC

জন্মসূত্রে নিউজিল্যান্ডের হলেও বেন স্টোকস এই বছর অক্টোবর পর্যন্ত ইংল্যান্ডের হয়ে ২০টি ওডিআই ম্যাচ খেলেন। ৬০ এর কাছাকাছি গড়ে ৭১৯ রানের পাশাপাশি শিকার করেন ১২ উইকেট। এই বছর আরও ৫টি টি-টোয়েন্টি, ৩টি টেস্ট ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে তার। সব ঠিক ঠাক থাকলে এই বছর আইসিসির বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হতে পারেন তিনি।

প্যাট কামিন্স

আইসিসি প্রকাশিত সর্বশেষ বোলিং র‍্যাংকিংয়ের টেস্টের ১ নম্বর ও ওয়ানডেতে ৪ নম্বর পজিশনে আছেন অজি ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্স। সদ্য শেষ হওয়া অ্যাশেজে তার পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া। ৫ ম্যাচে ২৭ উইকেট নিয়ে হয়েছিলেন টুর্নামেন্ট সেরা বোলার। কামিন্স সময়ের সেরা একজন বোলার হিসেবে বিশ্ব ক্রিকেটে বেশ সুনাম কুড়িয়েছেন।

প্যাট কামিন্স; Image Source: ICC

তিন ফরম্যাটেই অসাধারণ বোলিং করা দক্ষতা রয়েছে তার। শুধু বোলিং না, ব্যাট হাতেও কার্যকরী ইনিংস খেলতে পারেন তিনি। টেস্টের অলরাউন্ডার র‍্যাংকিংয়ে ৭ নম্বরে আছেন তিনি। কামিন্স এই বছর আটটি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৪০.৫ স্ট্রাইক রেটে ৪৩টি উইকেট শিকার করেন। ওডিআই খেলেছেন ১৬ ম্যাচ। ২৭.৩ স্ট্রাইক রেটে তুলে নিয়েছেন ৩১টি উইকেট। যতে ইকোনমি রেট ছিল ৪.৭৩।

প্যাট কামিন্স; icc

সিডনিতে জন্মগ্রহণকারী এই ক্রিকেটারের এই বছর এখনও ৬টি টি-টোয়েন্টি ও ৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা রয়েছে। ২৬ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের হাতেও উঠতে পারে এই বারের আইসিসি বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার।

Featured Image: icc

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More in ক্রিকেট